মঙ্গলবার, অক্টোবর ১৯, ২০২১

বাউফলে প্রকাশ্যে সন্ত্রাসীরা সেচ্ছাসেবকলীগ নেতা ও তার বোনকে কুপিয়ে জখম, আটক ২

ভাষান্তর: | বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীর বাউফলে সদর ইউনিয়নের সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মমিনুল ইসলাম গাজী (২৮) ও তাঁর বোন শারমিন নাহার (৪৫) কে প্রতিপক্ষরা প্রকাশ্যে রাম দা ও ট্যাডা দিয়ে কুপিয়ে গুরুত্বর জখম করেছে।

তাদেরকে গুরুত্বর আহত অবস্থায় স্থানীয়রা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আশংকাজনক অবস্থায় মমিনুলকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান এবং শারমিন নাহারকে ভর্তি করেন।

ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার (৩০ জুন-২০২০ ইং) সকাল ০৯টার সময় উপজেলার সদর ইউনিয়নের ০৯ নং ওয়ার্ডভূক্ত পশ্চিম বিলবিলাস গ্রামের রুহুল আমিন গাজীর দোকানের সামনে।

সরেজমিনে স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মমিনুল ইসলাম গাজী সকাল ০৯ টার সময় বাউফলের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিলে ওত পেতে থাকা জাহিদুল ইসলাম কালা, আশরাফ গাজী, জহিরুল ইসলাম, ইমাম প্যাদা, মোকসেদুর রহমান মবিন প্যাদা, তাহের গাজী, মজলু গাজী, বাবুল মাষ্টার, জালাল সরদার, আরিফ, ফয়সাল সহ আরও কয়েকজন রাম দা, ট্যাডা ও লাঠি নিয়ে জনসম্মুক্ষে এলোপাথাড়ি ভাবে কোপাতে থাকে এবং মমিনুল চিৎকার দিতে দিতে রুহুল আমিন গাজীর দোকানে ঢুকলে তারাও দোকানের ভীতর ঢুকে কোপাতে ও পিটাতে থাকে।

এমন সময় মমিনুলের বোন এসে ভাইকে বাচাতে তার গায়ের উপর পড়লে তাকেও এলোপাথারি ভাবে কুপিয়ে পিটিয়ে দোকান লুট করে চলে যায়।

এসময় মমিনুলের মোটর সাইকেল পিটিয়ে কুপিয়ে আগুন ধরিয়ে দিয়ে চলে যায়। পরে স্থানীয়রা গুরুত্বর জখম অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে।

বাউফল সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক লিটন মোল্লা জানান, গত সপ্তাহে ইমাম প্যাদা নামের এক সন্ত্রাসীকে পটুয়াখালী র‌্যাব-৮ এর সদস্যরা হত্যা চেষ্টার অভিযোগে গ্রেফতার করে এবং হাজতবাস হয়।

কিন্তু গতকাল সোমবার (২৯ জুন-২০২০ ইং) জামিনে বের হয়ে সন্ধ্যার পরে ইমাম প্যাদা, মোকসেদুর রহমান প্যাদা, জাহিদুল ইসলাম কালাসহ আরও অনেকে মোটর সাইকেল ও মাইকো বাস নিয়ে সোডাউন দিয়েছে বলে জানা গেছে এবং তারাই মমিনুলকে হত্যার উদ্দেশ্যে এ হামলা চালিয়েছে।

এর সঠিক বিচার কামনা করছি। এবিষয়ে বাউফল সার্কেলের সিনিয়র পুলিশ সুপার মোঃ ফারুক হোসেন বলেন, এঘটনায় প্রধান আসামি জাহিদুল ইসলাম কালাসহ আরও একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এসময় একটি রাম দা ও একটি ট্যাডা উদ্ধার করা হয়েছে। এবং জরিত অন্যান্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানান।

শেয়ার করুন: