ভাঙ্গায় অসহায় ‘দুটি পরিবার ঘরে আবদ্ধ’ যাতায়াতের সকল পথে বাঁশের বেড়া প্রভাবশালীদের

ভাষান্তর: | বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ভাঙ্গা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি: ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার কাউলিবেড়া ইউনিয়নের পল্লীবাড়া গ্রামের দুটি পরিবার কে ঘরে আবদ্ধ করে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জানা যায় পল্লীবাড়া গ্রামের জাকির মাতুব্বর(৩৮), পিতা মৃত শহিদ মাতুব্বর ও রফিকুল মাতুব্বর (৩২) এর বসত বাড়ি থেকে রাস্তায় ওঠার সকল পথ বন্ধ করে দিয়েছে প্রভাবশালী ফজলে মাতুব্বর চান মিয়া(চান্দু) মাতুব্বর মিরাজ মাতুব্বর গং। জমি জমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে এই ঘটনা ঘটেছে।

এই বিষয়ে সরজমিনে দেখা যায় এই দুই পরিবারের লোকজন চলাচলের সকল পথ বন্ধ করে দিয়েছে তাদের প্রভাবশালী প্রতিবেশীরা। বসত বাড়ি থেকে পাকা রাস্তায় যাবার পথে দেওয়া হয়েছে বাঁশের বেড়া।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে জাকির মাতুব্বর বলেন, আমরা গরিব অসহায় মানুষ আমাদের দেশে থেকে বিতাড়িত করার জন্যই আমাদের চলাচলের সকল রাস্তায় ফজলে মাতুব্বর তার ছেলে ফরিদ মাতুব্বর, চান মিয়া (চান্দু) মাতুব্বর মিরাজ মাতুব্বর গংরা বন্ধ করে দিয়েছে। ওরা আমাদের জমি জোর করে দখল করতে চায়।

তিনি আরো বলেন সাবেক চেয়ারম্যান কাজী রওশন এর কাছে বিচার দিলেও কোন সুরাহা হয়নি। পরবর্তীতে থানায় অভিযোগ দায়ের করলেও পুলিশ এর কাছ থেকে কোন সহযোগিতা পাইনি।

এই বিষয়ে ফজলে মাতুব্বর এর নিকট জানতে চাইলে তিনি সব স্বীকার করে বলেন একটা বিরোধ এর জেরে বাঁশ বেড়া দিয়েছিলাম পরবর্তীতে শালিস এর মাধ্যমে ঐ বাঁশের বেড়া খুলে ফেলেছি। বাকি বাঁশের বেড়া অন্যরা দিয়েছে।

শেয়ার করুন: