সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২১

ভাঙ্গায় গলায় ফাঁস দিয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা !

ভাষান্তর: | বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

সোহাগ মাতুব্বর ফরিদপুর প্রতিনিধি: ফরিদপুরের ভাঙ্গায় গলায় ফাঁস দিয়ে মিথিলা আক্তার (২৬) নামের এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন। সোমবার ভোর রাতে ভাঙ্গা  উপজেলার নাছিরাবাদ ইউনিয়নের চরপাল্লা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মিথিলার ৬ বছরের একটি ছেলে ও আড়াই বছর বয়সী একটি মেয়ে সন্তান রয়েছে। সে উপজেলার চরপাল্লা গ্রামের মোতালেব মাতুব্বরের মেয়ে।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, প্রায় আট বছর আগে মিথিলার সাথে মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার আর্দিপাড়া কানাইনগর গ্রামের রব শেখের ছেলে সাকিলের সাথে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। 

বিয়ের পর থেকেই তার স্বামী ও শশুর বাড়ির লোকজন যৌতুকের জন্য প্রায়ই তাকে বেধড়ক মারধর করাসহ শারীরিকভাবে নির্যাতন করতো।

নিহতের পিতা মোতালেন মাতুব্বর জানান, এছাড়া তার ননদ ও শাশুড়ি মিলে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে ঝগড়াঝাঁটি করতো।

মোতালেব মাতুব্বর আরো বলেন, তার শশুর বাড়ির লোকজন গত পরশু আমার দুই নাতিকে তাদের বাড়িতে রেখে মেয়েকে মেরে আমাদের বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়।আমার মেয়ে তার স্বামী, ননদ ও শাশুড়ির নির্যাতন ও যন্ত্রণা সইতে না পেরে আত্মহত্যা করেছে। 

ঘটনার রাতেও আমার মেয়ে তার স্বামীকে মোবাইল ফোনে তাকে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে। কিন্ত তার স্বামী তাকে মোবাইল ফোনে অনবরত গালাগালি করতে থাকে। এতে রাগে অভিমানে সে বাড়ির পাঁশে গাছের সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে। 

ভাঙ্গা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ সৈয়দ  লুৎফর রহমান বলেন, এব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পুলিশ কাজ করছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ফরিদপুর মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

শেয়ার করুন: