মঙ্গলবার, অক্টোবর ১৯, ২০২১

“পায়ে পচন ধরা মানসিক ভারসাম্যহীন মহিলার দায়িত্ব নিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার”

ভাষান্তর: | বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

সোহাগ মাতুব্বর,স্টাফ রিপোর্টার: ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার ঘারুয়া ইউনিয়ন পরিষদে অসুস্থতা ও অবহেলায় পরে থাকা রিতার দায়িত্ব নিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আজিম উদ্দিন।

উল্লেখ্য দুদিন আগে “রিতার বেঁচে থাকার আর্তনাদ” শিরোনামে একটি খবর প্রকাশিত হয়। রিতা রানী মালো মানসিক ভারসাম্যহীন মহিলা। কদিন আগে পা কেটে যায় সেখান থেকে ইনফেকশন হয়ে পায়ে পচন ধরে। এই খবর ভাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আজিম উদ্দিনের দৃষ্টিতে এলে তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন রিতার  সঙ্গে সরজমিনে দেখা করে। পরবর্তীতে রিতার মামার সঙ্গে কথা বলে রিতার চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন এবং নগদ পাঁচ হাজার টাকা প্রদান করেন।

এই বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আজিম উদ্দিন বলেন,  আমি জানা মাত্র দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও সচিব কে নির্দেশনা দেই। আজ নগদ পাঁচ হাজার টাকা সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন  আগামীকাল সরকারি অ্যাম্বুলেন্স পাঠানো হবে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল কলেজ ভর্তি করা হবে।

এ সময়ে উপস্থিত ছিলেন, ভাঙ্গা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর মেডিকেল অফিসার ডাঃ গনেশ, ঘারুয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সফি উদ্দিন মোল্লা, ঘারুয়া ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য নুরু সিকদার ও মোশাররফ হোসেন।

এছাড়া ও উপস্থিত ছিলেন আজকের ভোরের বাংলাদেশ অনলাইন পত্রিকার স্টাফ রিপোর্ট রিপন শেখ ও পদ্মার নিউজ ও খবর টুডের স্টাফ রিপোর্টার সোহাগ মাতুব্বর। রিতা রানীর মামা দুলাল মালো প্রমুখ।

শেয়ার করুন: