মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ৭, ২০২১

নির্বাচনি সহিংসতা, ভাঙ্গায় বিপুল পরিমান দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার। থানায় মামলা

ভাষান্তর: | বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

আব্দুল মান্নান, ভাঙ্গা(ফরিদপুর)প্রতিনিধি: ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার ১২টি ইউনিয়নে ৩য় ধাপে আগামী ২৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন।

নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রতিটি এলাকায় কাজী জাফরউল্লাহ ও নিক্সন চৌধরী এমপির সমর্থকদের মধ্যে চলছে ছোট-ছোট নির্বাচনী সহিংসতা। বড় ধরনের সহিংসতা এড়াতে আইন শৃংখলা পরিস্থিতি বজায় রাখতে ভাঙ্গা থানা পুলিশ অভিযান চালায়।

শনিবার রাতে উপজেলার হামিরদী ইউনিয়নের বড় মুসকুরনী গ্রামে ইউনুচ মাতুব্বর, রহমান মাতুব্বার ও বাকি মিয়ার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমান দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করে পুলিশ।

এঘটনায় এসআই সহিদুল ইসলাম বাদি হয়ে ১৮৭৮ সালের অস্ত্র আইনের ১৯ (ঝ) ধারায় মামলা করেছেন।
ভাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) বিকাশ মন্ডল জানান, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বড় মুসকুরনী গ্রামের লোকজন (কাজী জাফরউল্লাহ ও নিক্সন চৌধরী এমপির সমর্থক) ২ পক্ষ হয়ে দাঙ্গা-হাঙ্গামা করার জন্য দেশীয় অস্ত্র যোগাড় করেছে। এমন সংবাদ পেয়ে এসআই আবুল কালাম আজাদ, এসআই জুয়েল সহ সঙ্গিয় ফোর্স নিয়ে মুসকুরনী গ্রামে অভিযান চালাই।

এসময়ে ইউনুচ মাতুব্বর, রহমান মাতুব্বার ও বাকি মিয়ার বাড়ি সহ আরো কয়েক বাড়ি থেকে বিপুল পরিমান দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করি। উদ্ধারকৃত দেশীয় অস্ত্র গুলো হলো, ২১টি ঢাল, ৬টি টেটা, ২টি বড় আকারের রামদা, শতাধিক বাশের তৈরী লোহাযুক্ত কালি, ২৫টি বল্লম সহ বিপুল পরিমান লাঠি উদ্ধার করি।

এঘটনায় ১১ জন সহ আরো অজ্ঞাত ১৫/২০ জনকে আসামী করে পুলিশ মামলা করেছে। আসামীরা হল- ইউনুচ মাতুব্বর, রহমান মাতুব্বার, বাকি মিয়া, আব্বাস কাদা, সুমন কাদা, হেমায়েত কাদা, শাহীন খালাসী, মন্টু খালাসী, মিরহাজ মাতুব্বার, ফিরোজ মাতুব্বর, আলাউদ্দিন খালাসী। তবে পুলিশের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

শেয়ার করুন: